শিক্ষিকার পর এবার গৃহবধূকে ধর্ষণচেষ্টা ছাত্রলীগ নেতার

প্রকাশিত: ১০:২১ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ১৩, ২০২১

ভোলার মনপুরায় জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি এনাম হাওলাদারের বিরুদ্ধে এবার গৃহবধূকে ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগে মামলা করেছেন দুই সন্তানের জননী। শনিবার সকালে ওই গৃহবধূ ছাত্রলীগ নেতার বিরুদ্ধে মনপুরা থানায় মামলা করেন।

এর আগে ওই বিতর্কিত ছাত্রলীগ নেতা ২০১৮ সালের ৩১ মার্চ উপজেলার একটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের এক শিক্ষিকাকে স্কুলের রুমে ধর্ষণচেষ্টা চালায়। তখন ওই শিক্ষিকা প্রশাসনের সহায়তায় থানায় মামলা করেন। তবে পুলিশের খাতায় ওই ছাত্রলীগ নেতা পলাতক থাকলেও এলাকায় রয়েছে অবাধ বিচরণ। এছাড়াও ওই ছাত্রলীগ নেতার বিরুদ্ধে একাধিক ধর্ষণের অভিযোগ রয়েছে।

স্থানীয় এলাকাবাসীর অভিযোগ, ওই বিতর্কিত ছাত্রলীগ নেতার পিতা দক্ষিণ সাকুচিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ও ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান প্রার্থী জাহাঙ্গীর হাওলাদার। তার প্রভাবেই এলাকায় ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করছে ওই ছাত্রলীগ নেতা।

ওই গৃহবধূ জানান, গত বৃহস্পতিবার রাত ১০টায় তার স্বামী ও শাশুড়ি ওয়াজ শুনতে যান। ঘরে তিনি তার ৩ বছরের মেয়েকে নিয়ে ঘুমিয়ে ছিলেন। এ সময় ঘরের দরজা ভেঙে এনাম হাওলাদার প্রবেশ করে বাতি বন্ধ করে দেয়।

গৃহবধূ বলেন, এ সময় আমি কে কে বললে সে ছুরি বের করে আওয়াজ করলে প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি দেয়। তখন সে আমার সঙ্গে জোর করতে থাকে। একপর্যায়ে আমি এনামকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে ঘরের দরজা খুলে পাশের ঘরে থাকা ভাসুর মোতালেবের ঘরে গিয়ে চিৎকার করি।

এ সুযোগে এনাম পালিয়ে যায়। তখন এনামকে দৌড়ে পালাতে আমার ভাসুরের স্ত্রী নুপুর দেখে ফেলে। এদিকে শুক্রবার থানায় মামলা দিতে আসার সময় এনাম তার লোকজন দিয়ে বাধা দেয়। এখন বিভিন্নভাবে মামলা তুলে নেওয়ার জন্য হুমকি দিচ্ছে।

এ ব্যাপারে মনপুরা থানার ওসি শাখাওয়াত হোসেন জানান, গৃহবধূকে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে থানায় মামলা হয়েছে। অভিযুক্ত এনাম হাওলাদারকে ধরতে পুলিশি অভিযান অব্যাহত রয়েছে।




error: কপি রাইট আইনে সর্বস্বত সংক্ষিত