পাংশায় গোপাল বিশ্বাস হত্যাকাণ্ডে ব্যবহৃত অস্ত্র—গুলিসহ গ্রেফতার তিন

প্রকাশিত: ১০:০১ অপরাহ্ণ, মে ১১, ২০২২

রাজবাড়ীর পাংশা থানা পুলিশের অভিযানে বিদেশি অস্ত্র ও গুলিসহ তিন সন্ত্রাসীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। উদ্ধারকৃত অস্ত্র গোপাল বিশ্বাস হত্যাকাণ্ডে ব্যবহৃত হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

বুধবার ১১ মে সকাল ১১টায় পাংশা থানা পুলিশ এক বিবৃতিতে জানায় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে আসামি ১, বাঁধন বিশ্বাস (১৯) পিতা তুষার বিশ্বাস, ২ আশিক সিকদার (২২) পিতা মন্টু সিকদার উভয় গ্রাম নাওড়াবনগ্রাম। অন্যদিকে আরেক পলাতক আসামি তপু সরকারের স্ত্রী উর্মি শিকদার (২০) কে গ্রেফতার করা হয়েছে।

এসময় তাদের কাছ থেকে ১টি বিদেশি পিস্তল, ১টি দেশীয় তৈরী ওয়ান শুটার গান, ১টি ম্যাগাজিন, ১ রাউন্ড তাজা গুলি ও গোপাল বিশ্বাস হত্যাকাণ্ডে ব্যবহারকৃত ১টি গুলির খোসা উদ্ধার করা হয়।

উল্লেখ্য গত ৫ এপ্রিল সন্ধ্যা সাড়ে ৭ টার দিকে সরিষা ইউনিয়নের নাওড়াবনগ্রাম (ভূমিহীন) পাড়ায় শ্বশুরবাড়ীতে অবস্থান করা কালে পাংশা উপজেলার কলিমহর ইউনিয়নের হোসেনডাঙ্গা গ্রামের মৃত বাদল বিশ্বাসের ছেলে গোপাল বিশ্বাসকে গুলি করে তার শ্যালক বিজন সরকার। পরে তাকে প্রথমে পাংশা হাসপাতালে নেওয়া হয়। অবস্থার অবনতি হলে পাংশা থেকে ফরিদপুর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয় হয়। সেখানে থেকে ঢাকা মেকিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধিন অবস্থায় শনিবার ভোরে তার মৃত্যু হয়।