৪ আগ্নেয়াস্ত্রসহ দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির সভাপতি আটক

প্রকাশিত: ২:০০ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ২৭, ২০২০

চারটি আগ্নেয়াস্ত্রসহ বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির সভাপতি শাহ সিরাজুর রহমান সজলকে (৫২) আটক করেছে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি)।

রোববার সকালে নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলা বাইশারী ইউনিয়নের নিজ বাড়ি থেকে অস্ত্রসহ তাকে আটক করা হয়।

আটক শাহ সিরাজুর রহমান সজল একই এলাকার শাহ মোস্তাফিজুর রহমানের ছেলে।

সজল বাইশারী এলাকায় প্রতিষ্ঠিত একজন রাবার ব্যবসায়ী। দীর্ঘদিন ধরে তিনি নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলায় দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করে আসছিলেন। এ ছাড়া সামাজিক বিভিন্ন কাজে সম্পৃক্ত ছিলেন তিনি।

আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ও স্থানীয়রা জানান, সকালে নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলা বাইশারী ইউনিয়নের নিজ বাড়ি থেকে অস্ত্রসহ শাহ সিরাজুর রহমান সজলকে আটক করেছে বিজিবি।

বিজিবির সুবেদার মোহাম্মদ তাহাজ্জেল হোসেনের নেতৃত্বে সকালে নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলা বাইশারী ইউনিয়নে এ অভিযান চালানো হয়। এ সময় শাহ সিরাজুর রহমান সজলের বসতবাড়িতে তল্লাশি করে তিনটি একনলা বন্দুক এবং একটি এলজি রাইফেল উদ্ধার করা হয়। পরে তাকে আটক করে নাইক্ষ্যংছড়ি থানায় সোপর্দ করা হয়েছে।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে নাইক্ষ্যংছড়ি ১১ বিজিবি অধিনায়ক লে. কর্নেল শাহ আবদুল আজিজ আহমেদ বলেন, বিজিবির অভিযানে অস্ত্রসহ একজনকে আটক করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট আইনে বিজিবির অপারেশন দলের নেতৃত্বদানকারী সুবেদার তাহাজ্জেল হোসেন মামলা করবেন।

তবে আটক শাহ সিরাজুর রহমান সজলের পরিবারের দাবি, রাবার বাগানের জমিসংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে সজলকে ফাঁসানো হয়েছে। ২৭৯নং বাঁকখালী মৌজায় কিছু পাহাড়ি ভূমি নিয়ে সজলের সঙ্গে বিরোধ চলছিল।

নাইক্ষ্যংছড়ি থানা ওসি মো, আলমগীর হোসেন জানান, আটক সজলের বিরুদ্ধে মামলার প্রস্তুতি চলছে।




error: কপি রাইট আইনে সর্বস্বত সংক্ষিত