রাজবাড়িতে ইলিশ রক্ষা অভিযানে ১০ দিনে ১০৮ জন জেলের কারাদন্ড

প্রকাশিত: ৮:৩৭ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ২৩, ২০২০

রাজবাড়ি জেলা প্রতিনিধি :

ইলিশের প্রধান প্রজনন মৌসুম উপলক্ষে গত ১৪ই অক্টোবর থেকে দেশব্যাপি ইলিশ মাছ আহরণ, পরিবহন, মজুদ, বাজারজাত করণ, ক্রয়-বিক্রয় ও বিনিময়ের উপহারে ২২ দিনের সরকারী নিষেধাজ্ঞা শুরু হয়েছে, যা আগামী ৪ঠা নভেম্বর সমাপ্ত হবে
নিষেধাজ্ঞার প্রথম দিন থেকেই রাজবাড়ি জেলাধীন পদ্মা নদীতে পুলিশ র‍্যাব ও আর্ম ব্যাটালিয়ন আনসার সদস্যদের সহযোগীতায় জোরালোভাবে অভিযান পরিচালনা করেছে প্রশাসন ও রাজবাড়ি মৎস্য বিভাগ। অভিযান কালে আটক জেলেদেরকে ভ্রাম্যমান আদালত পইচালনার মাধ্যমে জেল জরিমানার পাশাপাশি উদ্ধারকৃত ইলিশ মাছ বিভিন্ন এতিম খানায় প্রদান এবং জব্দকৃত জাল নদীর পাড়ে আগুনে পুড়িয়ে ধ্বংস করা হচ্ছে।
রাজবাড়ি পদ্মা নদীতে অভিযানের পাশাপাশি বিভিন্ন হাট-বাজারে অভিযান চালিয়ে অবৈধভাবে আহরণকৃত ইলিশ মাছ ও নিষিদ্ধ কারেন্ট জাল বিক্রেতাদেরও দন্ড প্রদান করা হচ্ছে।
রাজবাড়ি জেলা মৎস্য কর্মকর্তা জয়দেব পাল বাংলাদেশ পেপারকে জানান,
গত ২৩ অক্টোবর পর্যন্ত অভিযানের ১০ দিনে ১০৮ জন জেলেকে বিভিন্ন মেয়াদে কারাদন্ড প্রদান ও ৬৩ হাজার টাকা জরিমানা আদায়, ১৩ লক্ষ ৬৫ হাজার মিটার কারেন্ট জাল ও ১.৫ হাজার মিটারের ৫টি সাধারণ জাল জব্দ করে জনসম্মুখে আগুনে পুড়িয়ে ধ্বংস করা, জব্দকৃত ২৮৭ কেজি ইলিশ মাছ এতিম খানায় প্রদান এবং জেলেদের ফেলে যাওয়া ৪টি ইঞ্জিন চালিত নৌকা প্রকাশ্য নিলামে ৯৩ হাজার টাকায় বিক্রি করা হয়। তিনি আরও জানান, চলমান ইলিশ রক্ষা অভিযান জোরদারের পাশাপাশি আরও কঠোর পদক্ষেপ নেওয়া হবে। সরকারী নির্দেশ অমান্য করে মৎস্য আহরণ কারীদের জেল-জরিমানা সহ নৌকা, ট্রলার ও জাল বাজেয়াপ্ত করা হবে।



error: কপি রাইট আইনে সর্বস্বত সংক্ষিত
%d bloggers like this: