পল্লী আমার-কবিতা

প্রকাশিত: ১:১০ অপরাহ্ণ, জুলাই ১৫, ২০২০

পল্লী আমার
📝মর্জিনা আক্তার সুমি

দেখেছি বিমুগ্ধ চোখে বর্ণ সমারোহ সবুজের
আঁকাবাকা মেঠোপথ আমার এ গাঁয়ের
দেখলে যেন চোখ জুড়ে, পাই সুগন্ধি মায়ের!
পাখি,ফুল-ফল,নদী-পুকুর রয়েছে সবই
নিশিতে মায়ের মুখে শুনি–
ঘুম পাড়ানি মাসি-পিসি।

বিলের ধারে ফুটে কতো হলুদ আর লাল শাপলা
নদীর পানিতে ভাসমান সবুজ শ্যাওলা,
এই যে অপূর্ব দৃশ্য আমায় ডাকে মায়ার টানে!
উচু পাড় হতে নুয়ে পড়ে পুকুরে কলমী আর ঘাসের লতা
ছোট্ট পুকুরে ভাসে রুই, কাতলা আর হংসী রাজা।

গাঁয়ে আমার বাউলা,ঘাটু,গাজি,সারি গান গায়।
শৈশব,কৈশোর আমাদের এভাবেই বেশ কেটে যায়!
কিশোর-কিশোরী,আর ছোট্ট খুকি আনন্দে ঘুড়ি উড়ায়
বর্ষাকালে যুবকদল নদীতে না-ও দৌড়ায়!

রক্তিম সূর্য উঁকি দিতেই কৃষকের আনাগোনা ক্ষেতে
নবান্নে কৃষাণী ব্যস্ত নতুন চালের পিঠা বানাতে,
আম,জাম,কাঠাঁল পাকে আরও কত কি!
কৃষাণীর ঘরে পায়েস আর নানা রকম পিঠা পুলি
জ্যোৎস্না রাতে দাদি আমার খুলে ঠাকুমার ঝুলি।
যেখানেই যাই,যেদিকে যাই তবু ফিরে আসি বার বার
এ যে প্রাণ প্রিয় পল্লী আমার!!!

মর্জিনা আক্তার সুমি
বিএসসি ২য় বর্ষ
কক্সবাজার সরকারি কলেজ




error: কপি রাইট আইনে সর্বস্বত সংক্ষিত
%d bloggers like this: