বাংলাদেশ, , মঙ্গলবার, ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

সংবাদ প্রকাশের পর ঠাকুরগাঁওয়ের আখানগর আশ্রায়ণে ত্রাণ নিয়ে হাজির সদর ইউএনও

বাংলাদেশ পেপার ডেস্ক ।।  সংবাদটি প্রকাশিত হয়ঃ ২০২০-০৫-১৭ ২৩:২৭:৩৮  

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি : 

ঠাকুরগাঁওয়ে চেয়ারম্যানের লোক না হওয়ায় ত্রাণ পাচ্ছে না আখানগর আশ্রায়ণের বাসিন্দারা” শিরোনামে  বাংলাদেশ পেপারে সংবাদ প্রকাশের পরদিনই সেই আশ্রায়ণে ত্রাণের খাদ্য সামগ্রী নিয়ে ছুটে যান ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার মানবতার ফেরিওয়ালা খ্যাত ইউএনও আব্দুল্লাহ-আল-মামুন। শনিবার (১৬ মে) দুপুরে সেখানে উপস্থিত হয়ে আখানগর আশ্রায়নসহ আশেপাশের ১০০টি পরিবারের মাঝে ত্রাণের খাদ্য সামগ্রী তুলে দেন তিনি।

এসময় ঠাকুরগাঁও অনলাইন প্রেসক্লাবের আহ্বায়ক বিধান চন্দ্র দাস, যুবনেতা মো: আরিফ, অনলাইন প্রেসক্লাবের সদস্য সচিব ফরিদুল ইসলাম রঞ্জু, রুহিয়া থানা আ’লীগের সদস্য জয়নাল আবেদিন, সাংবাদিক জয় মহন্ত অলক, এন্টুনি ডেভিড নীল, অন্তর রায় প্রিন্স প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

ত্রাণ সামগ্রী পাওয়া নাজু নামের আশ্রায়ণের এক নারী বলেন, করোনা ভাইরাসের কারণে আমাদের কাজকর্ম বন্ধ হয়ে গেছে, বাহিরে কাজে যেতে পারি না, এদিকে এলাকার চেয়ারম্যান-মেম্বারদের বার বার অনুরোধ করার পরও কোন রকম সাহায্য-সহযোগিতা করছে না, আমরা এখন কার কাছে যাবো, কে আমাদের সাহায্য করবে। এই ভেবে ভেবে খেয়ে না খেয়ে দিন পার করছিলাম। আজ ইউএনও স্যার এসে নিজে ত্রাণ দিয়ে গেলেন, কয়েকটা দিন ভালোভাবে চলতে পারবো।

আশ্রায়ণের বাসিন্দা প্রতিবন্ধী মকবুল জানান, শুধু শুনছিলাম সরকার নাকি গরীব-দূ:খীদের ত্রাণ দিচ্ছে, কিন্তু আমরা ত্রাণ চোখেও দেখি না। আজ সরকারি ত্রাণ পেলাম। বেশ ভালো লাগছে। ইউএনওকে কাছে পেয়ে আশ্রায়ণের বাসিন্দারা বেশ কিছু অভিযোগও তুলে ধরেন। তারা বলেন, গত চার বছর আগে আমাদের এখানে আগুন লেগে সকলের ঘরবাড়ী পুড়ে যায়। সেসময় আমাদের ঢেউটিন দেওয়ার কথা বলে উপজেলায় নিয়ে গিয়ে টিপসই নেওয়া হয়, কিন্তু আমাদের ঢেউটিন না দিয়ে কিছু ত্রাণসামগ্রী হাতে ধরিয়ে দেওয়া হয়।

আজোও তারা সেই ঢেউটিন পাননি বলে অভিযোগ করেন তারা। বিষয়টি জানার পর তাদের ইউএনও অফিসে যোগাযোগ করতে বলেন সদর ইউএনও আব্দুল্লাহ-আল-মামুন। ত্রাণ সামগ্রী বিতরণকালে সদর ইউএনও আব্দুল্লাহ-আল-মামুন বলেন, গতকাল অনলাইন সংবাদে আখানগর আশ্রায়ণের মানুষদের দূর্ভোগের খবর জানতে পেরে আজ এখানে ১০০টি পরিবারের মাঝে খাদ্য সামগ্রী প্রদান করা হলো। পরবর্তীতে তাদের সকল ধরণের সরকারি সুযোগ-সুবিধা প্রদান করা হবে। প্রসঙ্গত, আজ ১৬ মে দুপুরে ঠকুরগাঁও সদর উপজেলার সালন্দর আরাজি শিংপাড়ায় লকডাউনকৃত ২২টি পরিবারের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ শেষে ফেরার পথে সড়ক দূর্ঘটনার শিকার হন ইউএনও আব্দুল্লাহ-আল-মামুন।তারপরও তিনি থেমে থাকেননি, খাদ্য সামগ্রী নিয়ে ছুটে চলেছেন অসহায় মানুষদের সাহাযার্থে। ওই অবস্থাতেই তিনি রুহিয়া, আখানগর ও গড়েয়াতে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করেছেন।


পূর্ববর্তী - পরবর্তী সংবাদ
       
                                             
                           
ফেইসবুকে আমরা