বাংলাদেশ, , সোমবার, ৪ মার্চ ২০২৪

পেকুয়ায় জমি বিরোধের জের ধরে তিনজনকে পিটিয়ে জখম

বাংলাদেশ পেপার ডেস্ক ।।  সংবাদটি প্রকাশিত হয়ঃ ২০২০-০৫-০৩ ১৮:০৯:৩৪  

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

কক্সবাজারের পেকুয়ায় জমি বিরোধের জের ধরে বৃদ্ধসহ তিনজনকে পিটিয়ে জখম করেছে দূর্বৃত্তরা।
রবিবার (৩মে) সকাল ১০টার দিকে সদর ইউপির ভোলাইয়্যাঘোনা এলাকায় এঘটনা ঘটে।

আহতেরা হলেন, একই এলাকার মনির আহমদের ছেলে সাইফুল ইসলাম (৩৫), মৃত কোরবান আলীর ছেলে বৃদ্ধ জালাল আহমদ (৬৭), আবু বক্করের ছেলে জাকের হোসেন(৫৭)।

আহত তিনজনকে পরিবারের পক্ষ থেকে উদ্ধার করে পেকুয়া সরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

আহতের পক্ষে মনির আহমদের অপর ছেলে কাজি এনায়েতুল করিম বলেন,

সদর ইউপির গোঁয়াখালী উত্তর পাড়া এলাকার ফজল করিমের ছেলে আয়াতুল্লাহ দীর্ঘদিন ধরে আমাদের সাথে শত্রুতা করে আসছিল। আমাদের জমি জবর দখল করার জন্য বেশ কয়েকবার হামলাও চালায়। ওই জমি নিয়ে থানায় দুই পক্ষের প্রতিনিধি নিয়ে তিনবার বৈঠক হয়। আয়াতুল্লাহ কাগজপত্র দেখাতে না পেরে বৈঠকে তিনি বারবার হেরে যায়। কাগজ দেখাতে না পারলেও সন্ত্রাসী কায়দায় জমি জবর দখল চেষ্টা এবং হামলা করার কারণে বিগত সময়ে তার বিরুদ্ধে থানায় মামলা দায়ের করি। আমাদের পরিবারের মাওলানা নুরুল হকের স্ত্রী খোরশিদা বেগম বাদি হয়ে মামলাটি তাদের বিরুদ্ধে রুজু করেছিলেন। সর্বশেষ আজ সকালে আমার ভাই সাইফুল ইসলাম শ্রমিক জালাল আহমদ ও জাকের হোসেনকে নিয়ে জমিতে কাজ করতে যায়।

প্রায় দুইঘন্টা কাজ করার পর আয়াতুল্লাহর নেতৃত্বে আবুল আহমদের ছেলে নেছার আহমদ, কালা মিয়ার ছেলে মোঃ বেলাল, ছিদ্দিক আহমদের ছেলে আক্তার আহমদ, আক্তার আহমদের ছেলে মোস্তাক আহমদ ও আলী হোসেন আমাদের জমিতে গিয়ে ভাই সাইফুল ইসলাম ও দুই শ্রমিকদের উপর অতর্কিত হামলা চালায়। ওই সময় দুই শ্রমিকসহ আমার ভাই গুরুতর আহত হয়। পরে প্রতিবেশীরা হামলার বিষয়টি আমাদের অবগত করলে তাদেরকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করায়। হামলা ও আহতের বিষয়টি থানার ওসি কামরুল আজম ভাইকে অবগত করেছি।
পেকুয়া থানার ওসি কামরুল আজম বলেন, হামলার বিষয়টি শুনেছি। তাদের চিকিৎসা নিতে বলেছি। পরে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে।


পূর্ববর্তী - পরবর্তী সংবাদ
       
                                             
                           
ফেইসবুকে আমরা