বাংলাদেশ, , মঙ্গলবার, ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

আইসোলেশন থেকে পালিয়ে গেল যুবক; আতঙ্কিত জনগণ

বাংলাদেশ পেপার ডেস্ক ।।  সংবাদটি প্রকাশিত হয়ঃ ২০২০-০৪-১০ ১৭:৪৩:২৫  

কক্সবাজার প্রতিনিধিঃ

আজ শুক্রবার (১০ এপ্রিল) বেলা ১২ টার দিকে জ্বর সর্দি কাশি নিয়ে কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে আসেন একজন যুবক। তার শরীরে করোনা ভাইরাস এর বিভিন্ন আলামত থাকায় তাকে সদর হাসপাতালে আইসোলেশন এ ভর্তি করা হয়।

কিন্তু বিকেল তিনটার দিকে হাসপাতালে আইসোলেশন থেকে পালিয়ে যান ওই যুবক।

২২ বছর বয়সী ওই যুবক কক্সবাজার শহরের টেকপাড়ার বাসিন্দা। তার নাম-পরিচয় নিশ্চিত হওয়া গেলেও তা সামাজিক দায়বদ্ধতার কারণে প্রকাশ করা হলো না।

এদিকে, কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালের একজন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, ওই যুবক শুক্রবার বেলা সাড়ে ১২টার দিকে জেলা সদর হাসপাতালে আসেন ।করোনাভাইরাসের প্রাথমিক লক্ষণ জ্বর, সর্দি ও কাশি থাকায় তাকে হাসপাতালের আইসোলেশন ওয়ার্ডে ভর্তি দেয়া হয়। কিন্তু বিকেল ৩টার দিকে ওই রোগী হাসপাতাল থেকে পালিয়ে যায়।এ ব্যাপারে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ পুলিশকে জানিয়েছেন।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ওই চিকিৎসক জানান, পালিয়ে যাওয়া ওই যুবক ইতালিফেরত এক বন্ধুর সংস্পর্শে এসেছিলেন। ধারণা করা হচ্ছে, ওই বন্ধুর মাধ্যমে তিনি আক্রান্ত হয়ে থাকতে পারেন। তবে পরীক্ষা না করা পর্যন্ত কিছু বলা সম্ভব নয়। তার করোনা পরীক্ষার জন্য স্যাম্পল সংগ্রহ করা হয়েছে।

এদিকে বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে ওই চিকিৎসক জানান, পালিয়ে যাওয়া ওই যুবককে ধরা হয়েছে। তার মাসহ তাকে হাসপাতালে নিয়ে আসা হচ্ছে।

কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. মো. মহিউদ্দিন জানান, একজন ২২ বছর বয়সী রোগী আইসোলেশন থেকে পালিয়ে গেছে। কমবয়সী হওয়ায় হয়তো ভয় পেয়ে এটা করেছে।
তিনি জানান, ওই রোগী ফিরিয়ে আনতে পুলিশ পাঠানো হয়েছে।

এ ব্যাপারে জানতে কক্সবাজার সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহজাহান কবিরের দাপ্তরিক মোবাইলে কল দেয়া হলে তিনি ‘রং নাম্বার’ বলে মোবাইল কেটে দিয়েছেন। পরে একাধিকবার কল দেয়া হলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি।


পূর্ববর্তী - পরবর্তী সংবাদ
       
                                             
                           
ফেইসবুকে আমরা