বাংলাদেশ , মঙ্গলবার, ২১ জানুয়ারী ২০২০

ইরানে হামলার প্রস্তুতি, যুক্তরাষ্ট্রের ৫২ যুদ্ধবিমানের মহড়া

প্রিয়সংবাদ ডেস্ক  ২০২০-০১-০৯ ১৭:০৯:৩৪   বিভাগ:

বাংলাদেশ পেপার ডেস্কঃ

মার্কিন ঘাঁটিতে ক্ষেপণাস্ত্র হামলার পর যুক্তরাষ্ট্র ইরানে সামরিক হামলার প্রস্তুতি নিতে শুরু করেছে বলে জানা গেছে। এরই মধ্যে দেশটির পশ্চিমাঞ্চলীয় উতাহ অঙ্গরাজ্যের ঘাঁটি থেকে ৫২টি এফ-৩৫ এ যুদ্ধবিমান মহড়া শুরু করেছে।

এফ-৩৫ মডেলের যুদ্ধবিমানগুলো অত্যন্ত দক্ষ ও শক্তিশালী। ‘যুদ্ধের মুখোমুখি হতে হবে’- বিষয়টি বোঝার আগেই সেটিকে ধ্বংস করে দেয়ার ক্ষমতা রয়েছে এ বিমানের। খবর বিবিসি ও রয়টার্সের।

এ বিমানের গতি শব্দের গতির চেয়ে বেশি এবং এগুলো রাডারকে ফাঁকি দিতে সক্ষম। উচ্চ প্রযুক্তির ক্যামেরার মাধ্যমে পাইলট ককপিটে থেকে বিমানের নিচে ভূমি পর্যন্ত সবকিছুর ছবি ৩৬০ ডিগ্রি কোণে দেখতে পারেন।

এফ-৩৫ এ যুদ্ধবিমানের পেছনে যুক্তরাষ্ট্রের মোট ব্যয় চার দশমিক দুই বিলিয়ন ডলার। স্থানীয় সময় সোমবার উতাহ অঙ্গরাজ্যের হিল এয়ার ফোর্স বেস থেকে যুদ্ধবিমানগুলো মহড়ার প্রস্তুতি নেয়।

মঙ্গলবার গভীর রাতে এক ঘণ্টার ব্যবধানে ইরাকের পশ্চিমাঞ্চলের আইন আল আসাদ ও কুর্দিস্তানের ইরবিলে মার্কিন সামরিক ঘাঁটিতে ইরান ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালায়। এ ক্ষেপণাস্ত্র হামলার প্রতিশোধ নেয়ার চেষ্টা করা হলে ওই অঞ্চলে মার্কিন মিত্ররা আক্রান্ত হবে বলেও হুমকি দিয়েছে ইরানের বিপ্লবী গার্ড বাহিনী।

এর আগে ইরানি জেনারেল কাসেম সোলেমানিকে হামলা চালিয়ে হত্যার পর মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেছিলেন, ইরান এ হত্যার বদলা নিতে কোনো মার্কিনি বা যুক্তরাষ্ট্রের সম্পদের ওপর হামলা হলে ইরানের গুরুত্বপূর্ণ ও সাংস্কৃতিক ৫২ স্থাপনায় হামলা চালানো হবে। ইরানের ৫২ স্থানের মধ্যে ইরানের সংস্কৃতি এবং ইরানিদের কাছে খুব গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনা রয়েছে। এসব স্থানে খুব দ্রুত ভয়াবহ হামলা চালানো হবে।

ইসরাইলে হামলা হলে পাল্টা হামলা হবে ভয়াবহ : ইরান-যুক্তরাষ্ট্র উত্তেজনার মধ্যে এবার ইসরাইলের প্রধানমন্ত্রী বেঞ্জামিন নেতানিয়াহু হুশিয়ারি দিয়ে বলেছেন, যদি কোনো দেশ তার দেশে হামলা করলে পাল্টা হামলা চালাবে ইসরাইল। আর সেই হামলা হবে ভয়াবহ। এর আগে কাসেম সোলেমানি হত্যায় তার সমর্থনের কথা জানিয়েছিলেন নেতানিয়াহু। খবর রয়টার্সের।

বুধবার ভোরে ইরাকে অবস্থিত যুক্তরাষ্ট্রের দুটি সামরিক বিমানঘাঁটিতে ইরানের ২২টি ক্ষেপণাস্ত্র হামলার পর তিনি এ কথা বলেছেন। এর আগে ইরানের ভূমিতে হামলা হলে আরব আমিরাতের দুবাই ও ইসরাইলের হাইফা শহরে হামলা চালানোর হুমকি দেয় ইরানের রেভন্যুশনারি গার্ড বাহিনী।

বুধবার জেরুজালেমে নেতানিয়াহু বলেন, ‘যদি কেউ আমাদের ভূখণ্ডে হামলা চালায় তবে আমরা পাল্টা শক্তিশালী ও ভয়াবহ হামলা করব।’ শুক্রবার প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের নির্দেশে ইরাকের বাগদাদ বিমানবন্দরে ইরাকের শীর্ষ জেনারেল সোলেমানিকে হত্যার ঘটনায় ট্রাম্পের দ্রুত, সাহসী হামলাকে স্বাগত জানান তিনি।

ট্রাম্পের নির্দেশে ইরানের কুদস ফোর্সের প্রধান জেনারেল সোলেমানি এবং ইরাকের হাশদ আল-শাবি নামে পরিচিত পপুলার মোবিলাইজেশন ইউনিটের (পিএমইউ) প্রধান আবু মাহদি আল-মুহানদিস ও তাদের আট অনুসারী শুক্রবার বাগদাদ বিমানবন্দর থেকে বের হওয়ার সময় যুক্তরাষ্ট্রের ক্ষেপণাস্ত্র হামলায় নিহত হন।



ফেইসবুকে আমরা

আমাদের সাথে যুক্ত থাকুন
অনলাইন বিজ্ঞাপন
বিশ্ব বিদ্যালয় ভর্তি সংক্রান্ত সকল তথ্য পেতে ক্লিক করুন