বাংলাদেশ, , সোমবার, ২২ এপ্রিল ২০২৪

কক্সবাজার পালংখালীতে অবৈধ অস্ত্র তৈরি কারখানার সন্ধান

বাংলাদেশ পেপার ডেস্ক ।।  সংবাদটি প্রকাশিত হয়ঃ ২০২৩-০২-১৭ ০৮:৩৮:০৭  

উখিয়ার পালংখালী এলাকায় দেশীয় অস্ত্র তৈরির কারখানার সন্ধান পেয়েছে র‍্যাব। সেখানে অভিযান চালিয়ে অস্ত্র তৈরির বিভিন্ন সরঞ্জাম ও অস্ত্রসহ মোঃ ইউসুফ (৪১) নামে এক কারিগরকে আটক করা হয়।

কক্সবাজার র্যাব-১৫ অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ও সিনিয়র সহকারী পরিচালক মোঃ আবু সালাম চৌধুরী এ তথ্য জানিয়েছেন।
তিনি জানান, বুধবার রাতে র‍্যাব-১৫, কক্সবাজার এর সিপিএসসি ক্যাম্পের আভিযানিক দল গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অবগত হয়ে উখিয়া থানাধীন পালং ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ডস্থ পশ্চিম পালংখালীর জনৈক মোঃ ইউসুফের বসতবাড়ীর কাছে অভিযান চালায়।

অভিযানে জাহাঙ্গীর আলমের ছেলে মোঃ ইউসুফকে (৪১) আটক করতে সক্ষম হয়। উপস্থিত সাক্ষীদের সম্মুখে আটককৃত ব্যক্তির দেহ ও তার ব্যবহৃত কক্ষ তল্লাশী করে অবৈধ অস্ত্র তৈরীর সরঞ্জামাদীসহ আটককৃত ব্যক্তি কর্তৃক প্রস্তুতকৃত একটি দেশীয় তৈরী অস্ত্র (ওয়ান শুটার গান), ২ রাউন্ড গুলি তৈরীর বারুদ, বিভিন্ন রং ও আকৃতির মোট ৩৪ পিস গুলির খালি খোসা, বিভিন্ন আকৃতির ১৬ পিস বুলেট তৈরীর সীসা, একটি গ্যাস টর্চ, ২টি স্প্রিং, ১টি পিস্তলের বোল্ড, ১টি ছেনি, ১টি ইলেকট্রিক গ্রিন্ডার, ২টি রেন্স, ২টি ছোট রেন্চ, ১টি স্ক্রু ড্রাইভার, ১টি মেজারিং টেপ,১টি হ্যক্সোব্লেড, ভিন্ন ভিন্ন সাইজের ২টি কাঁচি, (১৬) ১টি চাকু, ১টি রেথ, ২টি ওয়্যার কাটার, ১টি নোজ প্লাস ও ১টি প্লাস, ১টি মাউথ কেটেল হর্স হোফ উদ্ধার করা হয়।
প্রাথমিক ‘জিজ্ঞাসাবাদের উদ্ধৃতি দিয়ে’ র্যাব জানিয়েছে, গ্রেফতারকৃত ইউসুফ দীর্ঘদিন ধরে ঘরের অভ্যন্তরে ছোট্ট একটি কক্ষে অস্ত্র ও অ্যামুনেশন তৈরীর কারখানা

নির্মাণের মাধ্যমে দেশীয় অস্ত্র তৈরি করে আসছে। এছাড়া ধৃত ইউসুফ একজন রোহিঙ্গা এবং কুখ্যাত রোহিঙ্গা ডাকাত ও ইয়াবা ব্যবসায়ী নবী হোসেনের আপন চাচাতো বোনের স্বামী। এই সুবাদে তিনি দীর্ঘদিন ধরে অস্ত্র ও অ্যামুনেশন তৈরি করে নবী হোসেনসহ ক্যাম্পের অন্যান্য সন্ত্রাসী গোষ্ঠীর নিকট সরবরাহ করে আসছে।

তিনি আরো জানান, আটককৃত ব্যক্তির বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করার জন্য উখিয়া থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে ।


পূর্ববর্তী - পরবর্তী সংবাদ
       
                                             
                           
ফেইসবুকে আমরা