বিএনপি-জামায়াত এদেশের মানুষের ভাগ্য নিয়ে ছিনিমিনি খেলে : এড. সিরাজুল মোস্তফা

প্রকাশিত: ১০:২৮ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ১১, ২০২৩

প্রেস বিজ্ঞপ্তি:

‘বিএনপি-জামায়াাত এদেশের মানুষের ভাগ্য নিয়ে ছিনিমিনি খেলে’ বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক এড. সিরাজুল মোস্তফা।

শনিবার বিকেলে শহরের লালদীঘি চত্বরে অনুষ্ঠিত আওয়ামী লীগের শান্তি সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।
এড. সিরাজুল মোস্তফা বলেন, জনসমর্থন আদায় না করে তারা (বিএনপি-জামায়াত) নৈরাজ্য সৃষ্টি করে এদেশের মানুষকে ভয় দেখিয়ে ক্ষমতায় যেতে চায়। কিন্তু বাংলাদেশের মানুষ এখন অনেক স্মার্ট। জনগণ তাদের সকল দেশ বিরোধী ষড়যন্ত্রের বিরুদ্ধে সোচ্চার হয়েছে।

বাংলাদেশের উন্নয়ন অগ্রযাত্রা অব্যাহত রাখতে আবারও নৌকায় ভোট দিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে বিজয়ী করতে আহবান জানান জানান তিনি।

সমাবেশে প্রধান বক্তা জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এড: ফরিদুল ইসলাম চৌধুরী বলেন, বিএনপি-জামায়াত কখনো বাংলাদেশের উন্নয়ন চায়নি। তারা যখনই ক্ষমতায় এসেছে উন্নয়নের নামে এদেশের জনগণের হাজার-হাজার কোটি টাকা দূর্নীতি করে বিদেশে পাচার করেছে। তারা শান্তি কি জিনিস বুঝে না। তাদের রক্তে শুধু হত্যা, নৈরাজ্য ও জালাওপোড়াও। এই দেশের জনগন শেখ হাসিনার নেতৃত্বে এখন অনেক ঐক্যবদ্ধ ও শক্তিশালী।

শান্তি সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন কক্সবাজার পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি নজিবুল ইসলাম ও সমাবেশ পরিচালনা করেন কক্সবাজার পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক উজ্জ্বল কর।

সমাবেশে পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি নজিবুল ইসলাম বলেন, সারা দেশে বিএনপি জামায়াতের নৈরাজ্য ও সহিংসতা রুখে দিতে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা যথেষ্ট। তারা ক্ষমতার লোভে পড়ে বিদেশি কুটনীতিকদের কাছে ধর্ণা দিয়ে দেশের ভাবমূর্তি নষ্ট করার অনেক চেষ্টা করেছে। বিভিন্ন স্থাসে সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড চালিয়েছে। যতদ্রুত সম্ভব এসব অনৈতিক কর্মকাণ্ড পরিহার করতে হবে। না হলে কক্সবাজার পৌর আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা তার দাঁত ভাঙ্গা জবাব দিতে বাধ্য হবে।
তিনি বলেন, বিশ্বের অনেক বাঘা বাঘা দেশ যখন অর্থনৈতিক মন্দার কবলে তখন শেখ হাসিনার বলিষ্ঠ নেতৃত্বে আওয়ামী লীগ সরকার এদেশের উন্নয়নের ধারাবাহিকতা অব্যাহত রেখে চলেছে। তাই আসুন, আগামী জাতীয় নির্বাচনে নৌকা মার্কায় ভোট দিয়ে আবারও আওয়ামী লীগকে জনগণের সেবা করার সুযোগ দিন।

শান্তি সমাবেশে বক্তব্য রাখেন কক্সবাজার জেলা আওয়ামী লীগ নেতা এড: রনজিত দাস, এড: ফরিদুল ইসলাম, পৌর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি যথাক্রমে আসিফ উল মওলা, ডাক্তার পরিমল কান্তি দাস, সাবেক স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা রহিম উদ্দিন, সাবেক ছাত্রনেতা নুরুল আজিম কনক, জেলা যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক শহিদুল হক সোহেল, জেলা ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদক আবু আদনান মো: মারুফ, পৌর আওয়ামী লীগ দপ্তর সম্পাদক সাহেদ আলী।

উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগ নেতা এড: সুলতান উল আলম, এড: তাপস রক্ষিত, পৌর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি যথাক্রমে হাজী এনামুল হক, সাইফুল ইসলাম চৌধুরী, আতিক উল্লাহ কোম্পানি, সেলিম নেওয়াজ, মিজানুর রহমান, পৌর আওয়ামী লীগ নেতা শুভ দত্ত বড়ুয়া, ইয়াহিয়া খান,নজরুল ইসলাম,জহিরুল কাদের ভুট্টো, মেজবা উদ্দিন কবির, নুর মোহাম্মদ, মোর্শেদুল হক চৌধুরী, ওসমান গনি টুলু, ওয়াহিদ মুরাদ সুমন, আবু আহমদ, তাজ উদ্দিন, হাবিব উল্লাহ, জাফর আলম, জিয়া উল্লাহ চৌধুরী, সেলিম ওয়াজেদ, ফরহাদ রেজা, আবদুল মজিদ সুমন, ফয়সাল হুদা, সোহেল রানা, সাগর পাল, আমির উদ্দিন, সৈয়দ নুর, আজিজ উদ্দিন, কাসেম আবেদিন, আনোয়ার হোসাইন, আবদুল মালেক রাজেনুল ইসলাম শিপু প্রমুখ।
সভার শুরুতে পৌর আওয়ামী লীগ এর বিভিন্ন ওয়ার্ড থেকে সভাপতি /সাধারণ সম্পাদক এর নেতৃত্বে মিছিলে মিছিলে সমাবেশ চত্বর পরিপূর্ণ হয়ে যায়।এছাড়া যুবলীগ ও ছাত্রলীগের নেতৃবৃন্দরাও মিছিল সহকারে যোগদান করেন। সভায় পবিত্র কোরআন তেলাওয়াত করেন জেলা ওলামা লীগের সভাপতি মৌলানা নুরুল আলম সরকার।