বাংলাদেশ, , শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

কক্সবাজারে ছিনতাইকারীদের ছু’রিকাঘাতে টমটম চালক খু’ন

বাংলাদেশ পেপার ডেস্ক ।।  সংবাদটি প্রকাশিত হয়ঃ ২০২৩-০১-০৭ ২৩:৫৬:০৫  

কক্সবাজার শহরের প্রধান সড়কে ছিনতাইকারীদের ছুরিকাঘাতে এক যুবক খুন হয়েছে। খবর নিয়ে জানা যায়, ছুরিকাঘাতে খুন হওয়া মিজান (২৭) মহেশখালী উপজেলার কুতুবজোম ইউপির খোন্দাকার পাড়ার আনছার উল্লাহর পুত্র।পেশায় একজন টমটম চালক।

দীর্ঘদিন ধরে কক্সবাজার শহরে টমটম চালাচ্ছে মিজান। প্রত্যক্ষদর্শীদের বরাত দিয়ে জানা যায়, ০৭ জানুয়ারি শনিবার রাত ১০ টার কিছু সময় পর টমটম যুগে টার্মিনাল যাওয়ার পথে সাবমেরিন ক্যাবল ল্যান্ডিং স্টেশনের সামনে ছিনতাইকারীর কবলে পড়ে মিজান।

এসময় ছিনতাইকারীরা মিজানের মোবাইল ছিনিয়ে পালিয়ে যাচ্ছিল। মোবাইলটি উদ্ধারের জন্য ধাওয়া করে ছিনতাইকারীদের ধরে ফেললে মিজানের কোমড়ের নিচের অংশে ছুরিকাঘাত করে পালিয়ে যায় ছিনতাইকারীরা।

স্থানীয় ও পথচারীরা দ্রুত কক্সবাজার সদর হাসপাতালে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করে। চিকিৎসক বলেন, অতিরিক্ত রক্তক্ষরণের ফলে মিজানের মৃত্যু হয়। ছুরিকাঘাতে বেশ জখম হয় তার কোমড়ের নিচের অংশে।

পথচারী ও টমটম চালকরা অভিযোগ করে বলেন, “পুরো সড়কে কোথাও কোন লাইটিং নাই। দুষ্কৃতকারীরা কৌশলে যাত্রী বেশে টমটমে উঠে আমাদের পাশে বসে ছুরির মুখে জিম্মি করে সর্বস্ব ছিনিয়ে নেয়।এছাড়াও মাঝে মধ্যে টহল পুলিশ থাকলেও তারা ব্যস্ত থাকে মোটরসাইকেল চালকদের লাইসেন্স নিয়ে।”

ছুরিকাঘাতের ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে শহর ফুলিশ ফাঁড়ির আইসি মহিউর রহমান বলেন, “শহর থেকে টার্মিনালগামী টমটমের সামনের সিটে চালকের পাশে বসে মোবাইল টিপেটিপছিল মিজান। আগে থেকে উৎপেতে থাকা ছিনতাইকারীরা তাকে টার্গেট করে গাড়ি থামিয়ে মোবাইল ছিনিয়ে নেয়। পরে মিজান তাদের ধাওয়া করে পাশের সরু গলি পর্যন্ত গেলে ছিনতাইকারীরা তাকে উপর্যুপরি ছুরিকাঘাত করে।”

এসময় গাড়িতে বসে মোবাইল না টিপলে এমন ঘটনা ঘটতো না বলেও জানান আইসি।


পূর্ববর্তী - পরবর্তী সংবাদ
       
                                             
                           
ফেইসবুকে আমরা