ওসির বিদায় সংবর্ধনা, কিন্ত অতিথি মাদকের গডফাদার!

প্রকাশিত: ৬:১১ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ২৯, ২০২২

দুই বছরের বেশি সময় দায়িত্ব পালনের পর শুক্রবার রাতে বিদায়ী সংবর্ধনার মধ্য দিয়ে টেকনাফ ছাড়েন ওসি হাফিজুর রহমান। তিনি টেকনাফ থানার ওসি হিসেবে পঁচিশ মাস দায়িত্ব পালন করেন। এ সময় ১১ বার জেলার শ্রেষ্ঠ ওসি হিসেবে নির্বাচিত হন হাফিজুর রহমান।

তবে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের তালিকাভুক্ত দুজন শীর্ষ মাদক কারবারিকে অতিথি করায় জেলা পুলিশকে নিয়ে নতুন করে বিতর্কের সৃষ্টি হয়েছে।

শুক্রবার রাতে টেকনাফ থানার হলরুমে ওসি হাফিজুর রহমানের বিদায় সংবর্ধনার আয়োজন করে টেকনাফ থানা পুলিশ।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উখিয়া টেকনাফের (সার্কেল) এএসপি শাকিল আহমেদ। যাদের অতিথি করার কারণে বিতর্কের সৃষ্টি হয়েছে তারা হলেন- টেকনাফ সাংবরাং ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নূর হোসেন ও হ্নীলা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান রাশেদ মো. আলি। দুজনই স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের তালিকাভুক্ত মাদক কারবারি ও ইয়াবা মামলার আসামি।

অনুষ্ঠানে নূর হোসেন ও রাশেদ মো. আলিকে এএসপি এবং ওসির দুই পাশে মঞ্চে বসানো হয়। দুইজনই ওসির প্রশংসা করে মাদকের নির্মূলে করণীয় নিয়ে বক্তব্য রাখেন! এছাড়াও অনুষ্ঠানে আরও কয়েকজন  চিহ্নিত ও আলোচিত মাদক কারবারি উপস্থিত ছিলেন।

এদিকে পুলিশের অনুষ্ঠানে বিতর্কিত ব্যক্তিদের অতিথি করায় জেলার সর্বত্রই সমালোচনার ঝড় বইছে। সচেতন মহল বলছে, এ ঘটনার মধ্য দিয়ে অন্যান্য মাদক কারবারিরা উৎসাহিত হবে। পাশাপাশি জেলা পুলিশের ভাবমূর্তি নিয়েও নতুন করে প্রশ্ন উঠতে পারে।

সিভিল সোসাইটিস ফোরামের কক্সবাজারের সভাপতি সিনিয়র সাংবাদিক ফজলুল কাদের চৌধুরী বাংলাদেশ পেপার’কে বলেন, তালিকাভুক্ত কোনো মাদক কারবারিকে অতিথি করা মানে হচ্ছে, মাদক কারবারিদের উৎসাহ দেওয়া।

তিনি অভিযোগ করে বলেন, বেশিরভাগ ক্ষেত্রে দেখা গেছে- প্রশাসনের কতিপয় অফিসারদের সহযোগিতায় মাদক কারবারিরা নির্বিঘ্নে মাদকের কারবার চালিয়ে যাচ্ছে। এটি নিয়ন্ত্রণ করা না গেলে কখনই দেশ মাদকমুক্ত হবে না।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে ঊর্ধতন কর্তৃপক্ষের অনুমতি ছাড়া ও মোবাইলে কোনো কথা বলা যাবে না উল্লেখ করে ফোনের লাইন কেটে দেন অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি উখিয়া-টেকনাফের এএসপি (সার্কেল) শাকিল আহমেদ।

চট্টগ্রাম রেঞ্জের ডিআইজি আনোয়ার হোসেন বাংলাদেশ পেপারকে বলেন, পুলিশের অনুষ্ঠানে তালিকাভুক্ত মাদক কারবারিদের অতিথি করার বিষয়টি খুবই জঘন্য। এ বিষয়টি কঠোরভাবে দেখা হবে।