উত্তপ্ত সীমান্ত পরিস্থিতি,পরীক্ষার্থীদের পাশে ছাত্রলীগ

প্রকাশিত: ৩:১২ পূর্বাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১৭, ২০২২
মুনতাকিম হোছাইনঃ
বান্দরবান পার্বত্য জেলাধীন নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার ঘুমধুম উচ্চ বিদ্যালয়টি বাংলাদেশ – মায়ানমার সীমান্তে অবস্থিত এবং ২০২২ সালের এসএসসি ও সমমান পরীক্ষার জন্য একটি অনুমোদিত কেন্দ্র। মায়ানমার – বাংলাদেশ সীমান্তের বর্তমান অস্থিতিশীল পরিস্থিতির কারণে এসএসসি পরীক্ষার্থীবৃন্দ ও তাদের অভিভাবকদের উৎকন্ঠা বিবেচনায় নিয়ে ঘুমধুম উচ্চ বিদ্যালয়ের পরীক্ষা কেন্দ্রটি পার্শ্ববর্তী কুতুপালং উচ্চ বিদ্যালয়ে ( যা কক্সবাজার জেলার উখিয়া উপজেলায় অবস্থিত) স্থানান্তর করার ব্যাপারে নিশ্চিত করেছেন বান্দরবান জেলা প্রসাশক জনাব ইয়াছমিন পারভীন তিবরীজি  ।
তাৎক্ষনিক উক্ত পরিস্থিতির জন্য কক্সবাজার জেলা ছাত্রলীগ থেকে  ঘুমধুম উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে বাস এর ব্যবস্থা নিশ্চিত করা হয়। যেন পরীক্ষার্থীরা ঘুমধুম উচ্চ বিদ্যালয় হতে কুতুপালং উচ্চ বিদ্যালয়ে নিরাপদে আসতে পারেন ।
এই ব্যাপারে মুঠোফোনে কক্সবাজার জেলা ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক মারুফ আদনান বাংলাদেশ পেপার’কে বলেন,
সীমান্ত পরিস্থিতির কারনে ঘুমধুম উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্র এসএসএসি পরীক্ষার্থীদের পরিবতর্তিত কুতুপালং উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে আসা যাওয়ার জন্যে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কক্সবাজার জেলা শাখার পক্ষ থেকে বাসের ব্যবস্থা করা হয়েছে। উক্ত বাসে করে সকল পরীক্ষার্থীরা সকাল ৯টায় ঘুমধুম উচ্চ বিদ্যালয় হতে কুতুপালং উচ্চবিদ্যালয়ে বাংলা ২য় পত্রের পরীক্ষায় অংশ নিতে পারবেন।।.”
প্রসঙ্গত, শুক্রবার রাত ৮  দিকে মিয়ানমার থেকে চারটি গোলা এসে পড়ে। এর মধ্যে তিনটি শূন্যরেখায় থাকা রোহিঙ্গা ক্যাম্পে ও আরেকটি বাংলাদেশের সীমানার ভেতরে পড়েছে। এতে এক রোহিঙ্গা শিশুসহ ৭ জন আহত হন। তাদের উদ্ধার করে স্থানীয় হাসপাতালে নেওয়া হলে মোহাম্মদ ইকবাল নামে এক রোহিঙ্গা যুবক মারা যান।