বাংলাদেশ, , সোমবার, ২২ এপ্রিল ২০২৪

বঙ্গবন্ধুর খুনিদের ‘শ্রদ্ধাভরে স্মরণ’ করলেন নৌকার প্রার্থী

বাংলাদেশ পেপার ডেস্ক ।।  সংবাদটি প্রকাশিত হয়ঃ ২০২২-০৬-০৪ ০১:০০:২৫  

বাঁশখালী (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি : এবার বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের খুনিদের ‘শ্রদ্ধাভরে স্মরণ’ করে বেফাঁস বক্তব্য দিয়েছেন চট্টগ্রামের বাঁশখালীর বাহারছড়া ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান ও আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে নৌকার মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী অধ্যাপক তাজুল ইসলাম; তিনি বাঁশখালী উপজেলা যুবলীগের সভাপতি ও এমপি মোস্তাফিজের ব্যক্তিগত সহকারী।

এ সংক্রান্ত ৪২ মিনিটের একটি ভিডিও ফুটেজ একুশে পত্রিকার কাছে এসেছে। গতকাল বৃহস্পতিবার (২ জুন) বাহারছড়া ইউনিয়নের বড়শিদীঘির পাড় এলাকায় নির্বাচনী পথসভায় তিনি এমন বক্তব্য দেন বলে নিশ্চিত হওয়া গেছে।

ওই ভিডিওতে বক্তব্যের শুরুতে তাকে বলতে শোনা যায়, ‘আমি শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করছি সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে। আর যারা জাতির জনক বঙ্গবন্ধুকে কিছু কুচক্রি বিপদগামী সৈনিকের মাধ্যমে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে ১৯৭৫ সালে ১৫ আগস্ট স্বপরিবারে বঙ্গবন্ধুসহ তার পরিবারকে হত্যা করেছিলেন, আমি তাদেরকে শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করছি। স্মরণ করছি একাত্তর সালে ৩০ লক্ষ শহীদদের, ২ লক্ষ মা-বোন ইজ্জত হারাইছেন তাদেরকে আমি শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করছি।’

সবসময় সত্য কথা বলেন জানিয়ে চেয়ারম্যান তাজুল ইসলাম বলেন, ‘আমি সবিনয়ে অনুরোধ করছি, আমার বক্তব্যগুলি শ্রবণ করার জন্য। কারণ, আমি যে কথাগুলি বলবো, আমি সদা সত্য কথা বলি। আমি মিথ্যা কথা বলি না। আমার সত্য কথাগুলো আপনাদেরকে শুনতে হবে। একজন চেয়ারম্যান ৫ বছরে ১৫ লাখ টাকার উন্নয়ন করতে পারেন। কিন্তু এই বাহারছড়ায় আমি গত ৫ বছরে ২৫ কোটি টাকার উন্নয়ন কাজ করেছি।’

এদিকে একজন সরকার দলীয় চেয়ারম্যানের এমন বক্তব্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা ও বীর মুক্তিযোদ্ধাদের মাঝে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে।

এ বিষয়ে মুক্তিযোদ্ধা সংসদ কমান্ড চট্টগ্রাম জেলার কমান্ডার (অর্থ) আবদুর রাজ্জাক বাংলাদেশ পেপার’কে বলেন, ‘মুক্তিযুদ্ধের স্বপক্ষের শক্তি আওয়ামী লীগ। এই আওয়ামী লীগ বঙ্গবন্ধুর আওয়ামী লীগ। মুক্তিযুদ্ধের স্বপক্ষের শক্তি নিয়ে নির্বাচিত একজন চেয়ারম্যানের এমন বক্তব্য সাংঘাতিক বিষয়। তিনি বঙ্গবন্ধুর খুনিদের শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করার ব্যাপারটা কখনো কাম্য নয়। আমি তার ওখানে গিয়ে মিটিং দেব, মোকাবেলা করবো এবং সারা চট্টগ্রামে বিক্ষোভ করবো। আমি এই বক্তব্যের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি। আমরা এ বিষয়ে বৈঠকে বসে কর্মসূচি দেওয়ার বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেব।’

বক্তব্য প্রসঙ্গে জানার জন্য বাহারছড়া ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী ও বর্তমান চেয়ারম্যান অধ্যাপক তাজুল ইসলামের ফোনে কল দেওয়া হলে তিনি রিসিভ করার পর কথা না বলে সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেন।

বাহারছড়া ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী বখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরী করিম বাংলাদেশ পেপার‘কে বলেন, ‘তাজুল নৌকার মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী হলেও আওয়ামী লীগের তৃণমূল নেতাকর্মীরা তার পক্ষে কাজ করছে না। তাই আওয়ামী লীগের বিরুদ্ধে বক্তব্য দিয়ে যাচ্ছেন তাজুল। জামায়াতকে খুশি করার জন্য বঙ্গবন্ধুর খুনিদের শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করে বক্তব্য দিয়েছেন। এটি অত্যন্ত দুঃখজনক।’

বাহারছড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও বাঁশখালী উপজেলা যুবলীগের সভাপতি তাজুল ইসলামের এমন আপত্তিকর বক্তব্য প্রসঙ্গে জানতে বাঁশখালী উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সংসদ সদস্য মোস্তাফিজুর রহমান চৌধুরীকে বেলা ২টায় কল দেওয়া হলে তিনি জুমার নামাজে আছেন বলে কল কেটে দেন।


পূর্ববর্তী - পরবর্তী সংবাদ
       
                                             
                           
ফেইসবুকে আমরা