প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ

প্রকাশিত: ১২:০৪ পূর্বাহ্ণ, জুলাই ২৫, ২০২১

“পেকুয়ায় নারীকে পিটিয়ে জখম“ সংবাদটি আমার দৃষ্টিগোচর হয়েছে। এটি সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন এবং অযৌক্তিক। এ ঘটনায় আমাকে হেয় করা হয়েছে। মূল ঘটনা হলো- বুলবুল আক্তার আমার ফুফি। আমার দাদা মারা যাওয়ার পরে ওনি ওনার নামে কিছু সম্পত্তি দিয়েছে মর্মে ভূয়া স্ট্যাম্প বানিয়ে আমাদের কাছে দাবি করে আসছিল। যা সম্পূর্ণ দেশের চলমান আইন পরিপন্থী । এর জের ধরে তিনি পেকুয়া থানায় আমাদের নামে অভিযোগ দায়ের করেন। ঐ অভিযোগ নিষ্পত্তি না হওয়ার আগেই জোর করে জমি দখল করতে চাইলে আমরা শুধু মানা করি। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে তিনি অভিনয় করে পেকুয়া হাসপাতালে ভর্তি হয় তার উপর হামলা হয়েছে বলে বেশ কয়েকটি পেপারে সংবাদ পরিবেশন করেন। ঐ সময় মোক্তার আহমদের পুত্র  হুমায়ন, রিদুয়ানের পুত্র আবু হানিফ, ছাবেরের স্ত্রী রহিমা, রিদুয়ানের স্ত্রী কহিনুর কেউ ছিল না। তা এলাকাবাসী অবগত আছে। আমার চাচা রিদুয়ানুল হকের সম্পত্তিও দখলে নিতে চায় আমার ফুফি। আমার চাচার পরিবার খুব অসহায়। আমার চাচা মানসিক প্রতিবন্ধীও।

আমার ফুফী বারবার আমাদেরকে এই জমি নিয়ে ষড়যন্ত্র করে আসতেছে তা স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা অবগত আছে। আমি এই ভূয়া সংবাদে কেউকে বিভ্রান্ত না হওয়ার জন্য অনুরোধ করবো। ভবিষ্যতে জাতির বিবেক সাংবাদিকদের অনুরোধ করবো যাতে আপনারা সঠিক সংবাদ পরিবেশন করেন।

প্রতিবাদকারী

শহিদুল ইসলাম

পিতা: মৃত: ছাবের আহমদ

সাং: ধনিয়াকাটা, টৈটং , কক্সবাজার।

প্র/কফ/পে




error: কপি রাইট আইনে সর্বস্বত সংক্ষিত