বিপুল পরিমাণ ইয়াবা সহ কক্সবাজারে ফ্লাট থেকে ৩ যুবক আটক

প্রকাশিত: ৭:০২ অপরাহ্ণ, মে ২৮, ২০২১

ওয়াহিদুর রহমান রুবেলঃ

কক্সবাজার শহরের তারাবনিয়ার ছড়া এলাকা থেকে ১৬ হাজার পিস ইয়াবাসহ তিন যুবককে আটক করেছে কক্সবাজার মডেল থানা পুলিশ। এ সময় তাদের কাছ থেকে ৬ টি মোবাইল ও মাদক বিক্রির নগদ সাড়ে ৩৮ হাজার টাকা উদ্ধার করা হয়েছে।

এসব মোবাইল তারা মাদক ব্যবসার কাছে ব্যবহার করতো বলে জানিয়েছেন পুলিশ।

শুক্রবার (২৮মে) দুপুর পৌনে দুইটার দিকে মডেল থানা পুলিশের একটি চৌকষ টিম শহরের তারাবনিয়ারছড়া এলাকার জনৈক হাজেরা পারভিন এর মালিকানাধীন বাড়ির ৪র্থ তলার একটি ফ্ল্যাট থেকে মাদকসহ তাদের আটক করা হয়।

আটককৃতরা হলেন, টেকনাফ নতুন পল্লান পাড়া এলাকার মৃত বশির আহমদ এর ছেলে মোহাম্মদ শাহ আলম (২৫), কক্সবাজার সদর উপজেলার ঈদগাঁও সিকদার পাড়া এলাকার মোতাহের আহমদ এর ছেলে এমদাদুল হাসান (২৪) এবং দক্ষিণ রুমালিয়ারছড়া এলাকার মো: রশিদের ছেলে তৌহিদুল হাসান (২২)।

থানা পুলিশের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে পুলিশ জানতে পারে যে, তারাবনিয়ারছড়া মসজিদের পূর্বপার্শ্বে জনৈক হাজেরা পারভিন নামে এক মহিলার বাড়ির চতুর্থ তলার একটি ফ্ল্যাটে কিছু লোক মাদক দ্রব্য বেচা কেনার জন্য অবস্থান করছে। উক্ত সংবাদের ভিত্তিতে দুপুরে সেখানে অভিযান পরিচালনা করা হয়। এ সময় ফ্ল্যাটে অবস্থান করা তিনজনকে আটক করা হয়। পরে তাদের হেফাজতে থাকা ষোল হাজার পিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয়। এ সময় মাদক কারবারে ব্যবহৃত চারটি স্মার্ট মোবাইল, দুইটি বাটন মোবাইল ফোনসহ মাদক বিক্রির নগদ ৩৮ হাজার ৫’শ টাকা জব্দ করা হয়।

গ্রেফতারকৃত আসামীদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে বলে পুলিশের পক্ষ থেকে জানানো হয়।

স্থানীয়রা জানিয়েছেন, কক্সবাজার শহরের প্রভাবশালী অনেক ব্যক্তির আশ্রয়ে ধৃত যুবক ইয়াবা ব্যবসা করে যাচ্ছেন। তাদের পৃষ্ঠপোষকেরা বিভিন্ন রকমের সামাজিক পরিচ্ছন্ন খোলসের (সামাজিক সংঘটন)  পরিচয় দিয়ে এই সব মাদক কারবারীদের আশ্রয় দিয়ে যাচ্ছে দীর্ঘ সময় ধরে। তাই দ্রুত তাদের আইনের আওতায় আনা না গেলে ইয়াবা ব্যবসা নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব হবে না বলে মনে করেন তারা।

কক্সবাজার মডেল থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ মনিরুল গিয়াস বলেন, যুব সমাজকে রক্ষা করতে সরকার মাদকের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স ঘোষনা করেছেন। আমরা মাদক মুক্ত সমাজ গড়তে কাজ করে যাচ্ছি। আমাদের এ অভিযান অব্যাহত থাকবে। মাদকের সাথে যেই জড়িত থাকুক না কেন কাউকে ছাড় দেয়া হবে না।