আক্রান্তদের বেশির ভাগ কক্সবাজার-বান্দরবান-কুয়াকাটা ভ্রমণকারী: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

প্রকাশিত: ৫:৫৯ অপরাহ্ণ, মার্চ ২৪, ২০২১

সম্প্রতি করোনা ভাইরাসে সংক্রমিতদের বেশির ভাগ কক্সবাজার-বান্দরবান-কুয়াকাটা কিংবা অন্য কোনো ভেন্যুতে বেড়াতে গিয়ে আক্রান্ত হয়েছেন বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক।

বুধবার (২৪ মার্চ) সচিবালয়ে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে আন্তঃমন্ত্রণালয় সভা শেষে এ কথা বলেন তিনি।

গত কয়েকদিনে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ বেড়ে যাওয়া প্রসঙ্গে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, আমাদের মনে রাখতে হবে যে, কেন বাড়ছে? বাড়ার উৎপত্তস্থলগুলো কোথায়? উৎপত্তিস্থল বন্ধ করতে হবে। হাসপাতালে যে সমস্ত রোগী এসেছে, তাদের সঙ্গে কথা বলে দেখেছি—তারা বেশির ভাগ কক্সবাজার বেড়াতে গিয়েছেন, বান্দরবান গিয়েছেন না হয় কুয়াকাটায় গিয়েছেন, নয়তো অন্য কোনো ভেন্যুতে গিয়েছেন, না হয় পিকনিকে গিয়েছেন। সেই বিষয়গুলো আমাদের অবশ্যই কমাতে হবে। বিয়েসাদি, ওয়াজ মাহফিল, আমাদের অন্যান্য যে সামাজিক অনুষ্ঠান সেগুলোতে জনসমাগম সীমিত করতে হবে।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, আপনারা জানেন করোনা একটু বৃদ্ধি পাচ্ছে। গতকাল সংক্রমণের হার ১৩ শতাংশ দেখেছি, যেটা ২ শতাংশের একটু বেশি ছিল। এখন একদিনে সাড়ে তিন হাজার সংক্রমিত হয়েছে।

জাহিদ মালেক বলেন, ঢাকা শহরের হাসপাতালগুলো অনেক রোগীতে ভরে গেছে। ঢাকা শহরে অনেক রোগী বাইরে থেকে আসছে। এ বিষয়গুলো মাথায় রেখে আমরা বেশ কয়েকটা হাসপাতাল করোনার আওতায় নিয়ে এসেছি। ঢাকার বাইরে গাজীপুর, টাঙ্গাইলে হাসপাতালে করোনা চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হয়েছে। উত্তর সিটির আইসোলেশন সেন্টার সবচেয়ে বড় স্থান।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, আমাদের তো চেষ্টা বজায় থাকবে। কিন্তু রোগীর উৎপত্তি বা সংখ্যা কমাতে হবে। রোগী যে হারে আসছে, যে হারে সংক্রমিত হচ্ছে, এটা যদি হতে থাকে তাহলে এই ব্যবস্থাও আল্টিমেটলি কুলাবে না। কাজেই আমাদের দেশ ও দেশের ইকোনমিকে রক্ষা করতে হলে এবং দেশের মানুষের কাজ-কর্ম যদি বজায় রাখতে হয় তাহলে আমাদের স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে।




error: কপি রাইট আইনে সর্বস্বত সংক্ষিত