শহরজুড়ে চলছে নৈরাজ্য,থেমে নেই চুরি ছিনতায় সহ নানা অপকর্ম

প্রকাশিত: ১:১৬ পূর্বাহ্ণ, মার্চ ১৫, ২০২১

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

হঠাৎ করে কক্সবাজার শহরে বেড়েছে চুরি ছিনতাই। বিশেষ করে ফ্লাট বাসাগুলোতে সংঘটিত হচ্ছে চুরি। গত
শুক্রবার সকালে মধ্যম বাহারছড়ার তাজুর মুলক সড়কের এনজিও কর্মী শাহ নেওয়াজ এর বাসা থেকে নগত ২৬ হাজার টাকা ল্যাপটপ ও অফিসিয়াল ট্যাব চুরি করে পালানোর সময় হাতেনাতে ধরা পরে সুমন চন্দ্র রায় নামের এক চোর।

এছাড়াও একমাস আগে একই এলাকায় এক সরকারি কর্মকর্তা আবুল হোসেন এর ভাড়াটিয়া আব্দু রহমান এর বাসা থেকে তালা ভেংগে নগত ১৩ লক্ষ টাকা ও ৬ ভরি স্বর্নালংকার চুরির ঘটনা ঘটে। সে ঘটনার ২/১ দিনের মধ্যে জসীম কমিশনারের ভাড়া বাসা থেকে চুরি করার সময় মানুষের উপস্থিতি বুঝতে পেরে চোর পালিয়ে যায়।

সম্প্রতি জেলায় পুলিশের বড়সড় রদবদলের সুযোগটা কাজে লাগাচ্ছে একটি চক্র এমন মনে করছেন অনেকে।

একটি সংঘবদ্ধ চক্র পরিকল্পিত ভাবে বাড়ির মালিকের অনুপস্থিতিতে ঘরের তালা ভেংগে এসব চুরি করছে এমনটাই বলছেন স্থানীয়রা

এদিকে গত শুক্রবার রাত ১ টার দিকে শহরের জইল্যার পুকুর এলাকায় রেজাউল করিম নামের এক ব্যবসায়ীকে আঘাত করে তার কাছে থাকা নগদ ৮ হাজার টাকা ও তার মোবাইলটি ছিনতাই হয়।

এছাড়াও কক্সবাজার শহরের আবারো মাদক ব্যবসায়ীরা সক্রিয় হয়ে তৈরী করছে মাদকের আখরা ।  তবে ইতোমধ্যে শহরের এমন অস্থিতিশীল পরিস্থিতি ঠেকাতে কাজ শুরু করেছে পুলিশ প্রশাসন।

দিনদুপুরে ঘরে ঢুকে একের পর এক চুরির ঘটনায় আতংকিত সাধারণ মানুষ আইন শৃংখলা বাহিনীর তৎপরতা বাড়ানোর দাবী জানিয়েছে।




error: কপি রাইট আইনে সর্বস্বত সংক্ষিত